চিলেদের সাথে ঘুরে আসুন লাদাখ ও মানালি

GTC এর পক্ষ থেকে লাদাখ ও মানালি
ভ্রমন ব্যাপ্তিকালঃ ৯ দিন ৯ রাত
যাত্রাঃ যাত্রা শুরু আগস্ট ৩০ তারিখ সকালে ৷ যাত্রা শেষ হবে সেপ্টম্বর ৭ তারিখ রাতে ৷
খরচঃ ৩৭,০০০ রুপি ৷
কাপলঃ নো কাপল পলিসি (মেয়েদের ডরমিটরি থাকতে হবে)
অভিযাত্রীঃ ৮ জন
কনফার্মেশনঃ জুলাই ১৩ মধ্যে আমরা পারমিশন এর জন্যে কাজ শুরু করে দিবো, পারমিশন এর জন্যে আপনাকে ২,৫০০ টাকা খরচ করতে হবে। পারমিশন এর পরই আমরা জুলাই ২০ এর মধ্যে এয়ার টিকেট করে ফেলবো।
বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করবেন হোস্টের সাথে।
প্রলয়ঃ 01784623555
টাকা দিতে হবেঃ
জুলাই ১৫ এর মধ্যেঃ ১৭,১৫০ রুপী + ২.৫০০ টাকা (পারমিট খরচ) ৷
*১৭.১৫০ রুপী/ ২১,০০০ টাকা
আগস্ট ৩০ সকালেঃ ১৯,৮৫০ রুপি
ইভেন্টে জয়েন করার আগে জেনে নিনঃ

  1.  যেকোনো পরিবেশের সাথে মানিয়ে চলার মতো মানসিকতা থাকলেই কেবল আমাদের সাথে জয়েন করবেন ৷
  2.  সকল ট্রান্সপোর্ট রিজার্ভ হবে ৷
  3. আমাদের সাথে ভ্রমনের জন্যে আপনার ভারতের যেকোনো পোর্টের ভিসা থাকলেই চলবে।

খরচের মধ্যে যা থাকছেঃ

  1. সকল ধরনের যাতায়াত খরচ ৷
  2. এন্ট্রি টিকেট ৷
  3. খাবার ৷
  4. হোটেল
  5.  কলকাতা-লেহ ও দিল্লী-কলকাতা এর এয়ার টিকেট

খরচের মধ্যে যা থাকছেনাঃ

  1. ভিসা খরচ
  2. ট্রাভেল ট্যাক্স
  3. বর্ডারে কোনো ধরনের স্পিড মানি
  4. পারমিট খরচ

দিন ১ঃ সকালে আমরা রওনা হবো বেনাপোল এর উদ্দেশ্যে ৷ সন্ধ্যা নাগাদ আমরা পৌঁছাবো কলকাতা শহরে। রাত ১০.২০ এর ফ্লাইটে করে আমরা রউনা হবো লেহ এর উদ্দেশে।
দিন ২ঃ সকাল ৮ টা নাগাদ আমরা পৌঁছাবো স্বপ্নের লেহ শহরে। হোটেলে বিশ্রাম করে আমরা আজ ঘুরবো লেহ শহর ও আশেপাশের কিছু স্পট। (শান্তি স্তুপা, লেহ প্যালেস, জান্সকার ও ইন্দু নদীর সাংগাম,ম্যাগনেটিক হিল)
দিন ৩ঃ ভোরে আমরা রউনা হবো খারদুংলা পাস এর পথে। পৃথিবীর দ্বিতীয় উচু মটোরেবল এই পাস পেরিয়ে আমরা চলে যাবো তুরতুক এ। তুরতুক এ রাত কাটাবো আমরা।
দিন ৪ঃ সকালে আমরা রউনা হবো ডিস্কিট এর উদ্দেশে। পথে ঘুরবো হুন্ডার, নুভ্রা ভ্যালী। রাতে থাকবো লেহ তে ৷
* নুভ্রা তে কেন রাতে থাকছিনা?
** টানা ৫ দিন উচ্চতায় থাকলে সবারই AMS এর প্রবলেম হতে পারে, তাই লেহতে রেস্ট এর জন্য ফেরত আসা হবে ৷
দিন ৫ঃ সকালে আমরা রউনা হবো পাংগং লেকের পথে। রাতে থাকা হবে পাংগং লেক এর পাড়ে।
দিন ৬ঃ সকালে আমরা চাংলা পাস হয়ে রউনা হবো সো মোরিরির পথে। পথে ঘুরে নিবো চুম্থাং হট স্প্রিং ও কিয়োগার লেক।
দিন ৭ঃ সকালে আমরা অভ্যন্তরীণ পথ ধরে চলে যাবো আরো একটি অসাধারণ সুন্দর লেক কার এ ৷ সেখান থেকে দেবরিং,পাং, সারচু, বারালাচা পাস, জিং জিং বার, দারচা, জিসপা হয়ে আমরা চলে আসবো কেলং এ ৷ রাতে থাকা হবে কেলং এ ৷
দিন ৮ঃ ভোরে রোহতাং পাস হয়ে আমরা চলে আসবো মানালি, শহর টা একটু ঘুরে নিবো। সন্ধ্যা ৫ টায় আমাদের দিল্লীর পথে বাস ধরবো ৷
দিন ৯ঃ সকাল ৯.৪৫ এর ফ্লাইটে করে আমরা রউনা হবো কলকাতার উদ্দেশে। ১২.০০ টায় কলকাতা এসে ৩ টার মধ্যে বর্ডার পেরিয়ে দেশে ফিরবো। রাত ১২ টার মধ্যে ঢাকা থাকবো ইনশা আল্লাহ।
ঢাকা-কলকাতা-ঢাকা এর যাতায়াত ফেরির জ্যাম এড়িয়ে যাওয়ার জন্যে আমরা ভেঙে ভেঙে করবো।

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এগার শিব মন্দির: যেখানে লুকিয়ে আছে এক রাজকন্যার অশ্রু

অজানা এক দুর্গনগরীর টানে: মাচু পিচু ভ্রমণ কথন