চিলেদের সাথে ঘুরে আসুন নাগাল্যান্ড ও মনিপুর

কোরবানির ঈদে নাগাল্যান্ড ও মনিপুর
ভ্রমন ব্যাপ্তিকালঃ ৬ দিন ৬ রাত
যাত্রাঃ যাত্রা শুরু আগস্ট ২৩ তারিখ রাতে ৷ যাত্রা শেষ হবে আগস্ট ৩০ তারিখ সকালে ৷
খরচঃ ১৩,৫০০ টাকা ৷ (৫০০-১,০০০ টাকা বাড়তেও পারে, সিক্যুরিটি মানি হিসেবে সাথে রাখবেন)
কাপল পলিসি নেই, মেয়ে হলে ডরমিটরি থাকতে হবে।
অভিযাত্রীঃ ৯ জন
কনফার্মেশনঃ আগস্ট ৫ তারিখের মধ্যে কনফার্ম করতে হবে ৷ কনফার্ম করার জন্যে যোগাযোগ করুন হোস্টের সাথে ৷
প্রলয়ঃ 01784623555
কনফার্ম করার জন্যে ইভেন্ট ফির ৩০% টাকা বিকাশ/সরাসরি দিতে হবে ৷ বাকি টাকা ইভেন্টের সুবিধা অনুযায়ী মেম্বারদের সাথে যোগাযোগ করে নেওয়া হবে ৷
ইভেন্টে জয়েন করার আগে জেনে নিনঃ

  1.  এটি একটি হাইলি কাস্টমাইজ করা ট্যুর, তাই যেকোনো পরিবেশের সাথে মানিয়ে চলার মতো মানসিকতা থাকলেই কেবল আমাদের সাথে জয়েন করবেন ৷
  2.  এই ট্রিপটিতে অল্প ট্রেক আছে ।
  3.  সকল ট্রান্সপোর্ট রিজার্ভ হবে ৷
  4. আমাদের সাথে ভ্রমনের জন্যে আপনার ভিসায় বাই রোড ডাউকি থাকতে হবে ৷

খরচের মধ্যে যা থাকছেঃ

  1. সকল ধরনের যাতায়াত খরচ ৷
  2. এন্ট্রি টিকেট ৷
  3. খাবার ৷ (ঢাকা-সিলেট-ঢাকার যাত্রা বিরতির খাবার বাদে)
  4. হোটেল

খরচের মধ্যে যা থাকছে নাঃ

  1. ভিসা খরচ
  2. ট্রাভেল ট্যাক্স
  3. বর্ডারে কোনো ধরনে স্পিড মানি
  4. পারমিট খরচ (যদি থাকে)

দিন ০ঃ রাতের বাসে করে আমরা রওনা হবো সিলেটের উদ্দেশ্যে ৷
দিন ১ঃ সিলেট পৌছে বাসে করে চলে যাবো তামাবিল বর্ডারে ৷ বর্ডার পেরিয়ে আমরা গাড়ি ঠিক করে ফেলবো শিলং এর ৷ শিলং থেকে আবারো গাড়িতে করে গোয়াহাটি যাবো আমরা। গোয়াহাটি থেকে রাত ১১.৩০ টার ট্রেনে করে আমরা রওনা হবো ধিমাপুর এর উদ্দেশে।
দিন ২ঃ ভোরে আমরা পৌছাবো ধিমাপুর। সেখান থেকে চলে যাবো এর নাগাল্যান্ড রাজধানি কোহিমাতে। সারাদিন আমরা ঘুরবো কোহিমা শহর।
দিন ৩ঃ আজকে আমরা সকালে চলে যাবো বিসামা। বিসামা থেকে আমাদের ট্রেক শুরু হবে জুকো উপত্যকার দিকে। জুকো ঘুরে আবার আমরা ট্রেক করে চলে আসবো জাখামা তে ।
দিন ৪ঃ সকালে আমরা রউনা দিবো মনিপুর এর রাজধানি ইম্ফাল এর দিকে। ইম্ফাল পৌঁছে আমরা যাবো অন্দর গ্রাম ঘুরতে ।
দিন ৫ঃ সকালে আমরা যাবো লোক্তাক লেক ও কেইবুল লামজাও জাতিয় পার্ক এ। কেইবুল লামজাও পৃথিবীর একমাত্র ভাসমান জাতিয় পার্ক। বিকেলে আমরা রউনা হবো ধিমাপুর এর উদ্দেশে ।
দিন ৬ঃ ভোর ৬ টার ট্রেনে করে আমরা রউনা হবো গোয়াহাটির পথে। গোয়াহাটি পৌঁছে চলে যাবো সোজা ডাঊকি বর্ডারে। ৬ টার আগে বর্ডার পেরিয়ে রাতের বাসে রউনা হবো ঢাকার পথে।
দিন ০ঃ ভোর নাগাদ আমরা পৌছাবো ঢাকা শহরে ৷

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই শ্রাবণে কক্সবাজারে

লাটাগুড়ি: ডুয়ার্সের এক নির্জন স্টেশনের গল্প