বর্ষায় বান্দরবানে পারিবারিক ভ্রমণ

ইহা একটি লাভজনক ইভেন্ট। আপনার অর্থের বিনিময়ে যথাযথ সার্ভিস প্রদানের মাধ্যমে আপনার ভ্রমণকালীন সময়গুলোকে উপভোগ্য, প্রাণবন্ত ও স্মৃতিময় করে তুলতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
প্রাকৃতিক সৌর্ন্দযের লীলাভূমি এবং অবারিত সবুজের সমারোহ বাংলাদেশের পাহাড়ী কন্যা বান্দরবান। অনেকে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করার জন্য ভারতের দার্জিলিং যান। কিন্তু সৌন্দর্যের দিক থেকে বান্দরবান দার্জিলিং থেকে কোনো অংশে কম নয়। অনেকেরই ধারণা বান্দরবান ভ্রমনের উপযুক্ত সময় শীতকাল। কিন্তু মেঘের রাজ্যে হারিয়ে যাওয়ার উপযুক্ত সময় বর্ষাকাল। বর্ষাকাল বান্দরবানকে যেন এক নতুন সাজে সাজিয়ে তোলে। মেঘ পাহাড়ের সাথে মিতালী করতে বর্ষাকালের জন্য অপেক্ষা করতে থাকে। আপনাদের জন্য AnywhereBangladesh এর এবারের আয়োজন পরিবার নিয়ে বান্দরবানে বর্ষা উদযাপন।
যাত্রার তারিখঃ ১৯শে জুলাই (বৃহস্পতিবার) রাত ০৯:০০টা
ফেরার তারিখঃ ২২শে জুলাই (রবিবার) সকাল ০৭:০০টা
ভ্রমন বৃত্তান্তঃ
১৯শে জুলাইঃ রাত ০৯:০০ টায় ফকিরাপুল/সায়েদাবাদ থেকে বাসে বান্দরবানের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু।
২০শে জুলাইঃ সকাল ০৭:০০ টায় বান্দরবান পৌঁছে হোটেল হলিডে ইন এ চেক ইন। হোটেলে ফ্রেশ হয়ে সকালের নাস্তা খেয়ে হোটেলের বিপরীত পাশে অবস্থিত মেঘলা পর্যটন কমপ্লেক্স পুরোটা ঘুরে বেড়াব। এরপরে হোটেলে ফিরে দুপুরের খাবার খেয়ে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে আমাদের জন্য অপেক্ষমান জীপে করে চলে যাব স্বর্ণমন্দির। পুরো মন্দিরটা ঘুরে ছবি তুলে কিছুটা সময় কাটিয়ে চলে যাব নীলাচলে সূর্যাস্ত উপভোগ করতে। নীলাচল থেকে ফিরে হোটেলে চলে যাব এবং বাকি সময়টা নিজেদের মতো আড্ডাবাজি করে কাটিয়ে রাত ০৯:৩০ এর দিকে রাতের খাবার সেরে নিব।
২১শে জুলাইঃ খুব ভোরে মেঘের রাজ্যে হারিয়ে যেতে চলে যাবো নীলগিরিতে। মেঘের রাজ্যে কিছুক্ষণ ঘোরাঘুরি করে ফটোসেশন শেষ করে যাত্রা শুরু করব শহরের দিকে পথে দেখে নিব শৈলপ্রপাত। শহরে এসে দুপুরের খাবার খেয়ে বাকী সময়টা নিজেদের মনের মত ঘোরাঘুরি ও শপিং করে কাটাব। রাতের খাবার শেষে সুখস্মৃতি মনে নিয়ে রাত ০৯:০০টার বাসে ঢাকার উদ্দেশ্যে ফিরতি যাত্রা শুরু করব।।
২২শে জুলাইঃ সকাল ০৭:০০ টায় ঢাকা পৌছে যার যার গন্তব্যে চলে যাব সাথে নিয়ে যাব মধুর কিছু স্মৃতি।
ভ্রমন খরচঃ
জনপ্রতি ৫,৫০০/- টাকা (নন এসি বাস)
** এসি বাসে ভ্রমণের জন্য অতিরিক্ত ১,০০০/ প্রদান করতে হবে।
শিশু পলিসিঃ
০-২ বছর সম্পূর্ণ ফ্রী (ইনফ্যান্ট)
০২-০৬ বছর ৪,০০০/- টাকা (বাবা-মার সাথে বিছানা শেয়ার করবে)
রেজিস্ট্রেশন পদ্ধতি
কনফার্মেশনের জন্য অগ্রীম ৩,০০০/- টাকা প্রদান করতে হবে। কোনরূপ মৌখিক কনফার্মেশন গ্রহনযোগ্য নয়। বুকিং মানি অফেরতযোগ্য।
বুকিংয়ের শেষ সময়ঃ ১০ শে জুলাই রাত ১২:০০ টা
বিকাশঃ ০১৮১৯১৩১৪৭৮ (খরচ সহ পাঠাতে হবে)
০১৯১৫১০৮৮০০ (খরচ সহ পাঠাতে হবে)
ব্যাংক পেমেন্টঃ মোহাম্মদ নাইমুল হাসান
১১০.১০১.৪১৭১১
ডাচ বাংলা ব্যাংক, ধানমন্ডি শাখা।
এছাড়া কেউ চাইলে অফিসে গিয়েও টাকা জমা দিতে পারবেন
অফিসের ঠিকানাঃ
AnywhereBangladesh
৭৬৮(চতুর্থ তলা), বেগম রোকেয়া স্মরণী,
শেওড়াপারা, কাফরুল, মিরপুর, ঢাকা-১২১২
ফোনঃ ০১৭০৪১৭০২৮০
০১৭০৪১৭০২৭৭
০১৭০৪১৭০২৭৬
যা যা দেখবঃ
* নীলগিরি
* শৈলপ্রপাত
* স্বর্ণ মন্দির
* মেঘলা
* নীলাচল
এই খরচে যা যা থাকবেঃ
১. ঢাকা – বান্দরবান – ঢাকা ননএসি বাসের টিকেট
২. একরাত হোটেল এ থাকা।
৩. ০২ দিন সকালের নাস্তা
৪. ০২ দিন দুপুরের খাবার
৫. ০২ দিন রাতের খাবার
৬. সকল স্পট ভাড়া
এই খরচের অন্তর্ভুক্ত নয়ঃ
১. ঢাকা – বান্দরবান – ঢাকা যাত্রা বিরতির খাবার
২. যেকোন ধরণের ব্যক্তিগত খরচ।
সাথে নিতে হবেঃ
১. ক্যাপ
২. সানস্ক্রিন
৩. সহজে বহনযোগ্য ব্যাগ
৪. ছাতা অথবা রেইনকোট
৫. ব্যক্তিগত ঔষধ
সতর্কতাঃ

  1. ভ্রমনকালীন সকল ধরনের রাজনৈতিক আলোচনা নিষিদ্ধ।
  2. যেকোন ধরনের সমস্যা সবার সাথে আলোচনা করে সমাধান করার মানসিকতা থাকতে হবে।
  3. শালীনতার মধ্যে থেকে ভ্রমনটাকে উপভোগ করতে হবে।
  4. প্রতিটি যায়গাই আমাদের নিজেদের, তাই তার সৌন্দর্য রক্ষা করা আমাদের নৈতিক দায়িত্ব।
  5. পরিবেশের ক্ষতি হয় এরকম কোন কাজ করা যাবেনা।
  6. অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে যেকোন সময় সিদ্ধান্ত বদলাতে পারে, যেটা আমরা সকলে মিলেই ঠিক করব।
  7. সকল অবস্থায় AnywhereBangladesh এর সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত বলে গণ্য হবে।
Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

থিম্পু: অচেনা শহর চেনা লোকজন

কলকাতার এক স্নিগ্ধ সকালের রূপ-গন্ধ