E T B এর ইভেন্ট: বিছনাকান্দি, রাতারগুল, পান্থুমাই ভ্রমণ

আপনাদের সকলের কথা চিন্তা করে ইটিবি নিয়ে আসছে আরো একটি আরামদায়ক ভ্রমণ এবং সাথে প্রকৃতি ও ঝর্ণা প্রেমিকদের জন্য প্রকৃতির সান্নিধ্য তো থাকছেই। এবার আমাদের গন্তব্যস্থল বিছানাকান্দি ও রাতারগুল জলবন।
এবারের প্ল্যানিংঃ
২৬ শে জুলাইঃ
রাতের বাসে আমরা সিলেটের উদ্দেশ্যে বাসে/ট্রেনে করে রাওনা করব।
২৭ শে জুলাইঃ
সিলেটে সকালে নেমে আমরা একটা হোটেলে উঠে ফ্রেশ হয়ে নাস্তা করে নিব। তারপরে আমরা সকালে রাতারগুল ও বিছানাকান্দি উদ্দেশে যাত্রা করব। পথে আমরা সিলেটের সবচেয়ে বড় চা বাগান লাক্কাতুরা দেখব। প্রথমে আমরা রাতারগুল ঘুরবো। এই পথে আমরা কিছু খাবার খেয় নিব তারপর আমরা সারাটা বিকাল কাটিয়ে দিব বিছানাকান্দিতে। সব ঘোরা শেষে সিলেট শহরে এসে সিলেটের বিখ্যাত পাঁচ ভাই রেস্তোরাঁয় খাবার খেয়ে বাসে ঢাকা উদ্দেশে রওনা করব।
বিছানাকান্দিকে অনেকে প্রকৃতির রানী বলে অভিহিত করে থাকে। বিছানাকান্দির পাশে মেঘালয়ের পাহাড়গুলো এর সৌন্দর্যকে করেছে অপরূপ। মেঘালয়ের ঝরনা থেকে পানি এসে ও ছোট বড় পাথর মধ্যে সৃষ্টি হয়েছে পানি ও পাথরের একটি অপরূপ লিলাখেলা। যা একটি প্রকৃতি প্রেমিকের মনকে অবশ্যই বিমোহিত করবে।
রাতারগুল জলাবন বা রাতারগুল সোয়াম্প ফরেস্ট বাংলাদেশের্র মিঠাপানির জলাবন বা সোয়াম্প ফরেস্ট এবং বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য, যা সিলেটের গোয়াইনঘাটে অবস্থিত। বনের আয়তন ৩,৩২৫.৬১ একর, আর এর মধ্যে ৫০৪ একর বনকে ১৯৭৩ সালে বন্যপ্রাণী অভয়ারণ্য হিসেবে ঘোষণা করা হয়। এটি পৃথিবীর মাত্র কয়েকটি জলাবনের মধ্যে অন্যতম একটি। সিলেটের স্থানীয় ভাষায় মুর্তা বা পাটি গাছ “রাতা গাছ” নামে পরিচিত। সেই রাতা গাছের নামানুসারে এ বনের নাম রাতারগুল। জলে নিম্নাংঙ্গ ডুবিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা বনের গাছগুলো দেখতে বিভিন্ন সময়, বিশেষ করে বর্ষা শুরু ও শেষ মৌসুমে এখানে ভিড় করেন পর্যটকগণ। বনের ভিতর ভ্রমণ করতে দরকার হয় নৌকার, তবে সেগুলো হতে হয় ডিঙি নৌকা ডিঙিতে চড়ে বনের ভিতর ঘুরতে ঘুরতে দেখা যায় প্রকৃতির রূপসুধা।
ভ্রমণ কাল: ১দিন ২ রাত
ভ্রমণের ধরন: রিল্যাক্স
টিম মেম্বারঃ ২৪ জন
ইভেন্ট ফিঃ ৩,০০০/- টাকা জনপ্রতি।
এ টাকায় যা যা থাকবেঃ
১। সকল ধরনের পরিবহন খরচ ঢাকা-সিলেট- ঢাকা।
২। প্রতি দিন ২ বেলা মুল খাবার এবং সকালে নাস্তা।
৩। গাইড সার্ভিস।
৪। সকল ধরনের প্রবেশ টিকিট।
যা যা থাকবে নাঃ
১। ব্যক্তিগত মেডিসিন
২। ব্যক্তিগত খরচ
৩। হাইওয়েতে খাবার
আমরা এই ট্যুরে যে সব জায়গা দেখবোঃ
১। সিলেট শহর
২। বিছনাকান্দি
৩। রাতারগুল
৪। পান্থুমাই ঝর্ণা
৫। লক্ষন ছড়া (সময় সাপেক্ষে)
কনফার্ম করার নিয়মাবলীঃ
যারা যারা যেতে আগ্রহী তারা অবশ্যই ১,০২০/- টাকা বিক্যাশে জমা দিয়ে আপনার আসন কনফার্ম করতে পারেন। বিক্যাশ করার পর আপনার ফেসবুক নাম , ঠিকানা, মোবাইল নাম্বার, এবং যে নাম্বার থেকে টাকা পাঠিয়েছেন তার শেষ ৩ ডিজিট আমাদের বিক্যাশ নাম্বারে ম্যাসেজ করবেন এবং আমাদের ইভেন্ট পেজে কি আপনি টাকা বিক্যাশে প্রেরন করেছেন তার জন্য একটা পোষ্ট দিবেন।
বিক্যাশ করতে পারেনঃ
০১৯১৬২২২৩৯৯ (পারসোনাল)
০১৮৮৩৬৯৭৭২৮ (পারসোনাল)
ব্যাংকঃ
ব্যাংক একাউন্টেও টাকা জমা দিতে পারেন।
Bank Name: Dutch Bangla Bank Limited
Branch Name: Islampur Branch, Dhaka.
Account Name: Setu Chandra Das
Account Number: 118-101-52701
অথবা
সরাসরি দেখা করে হাতে হাতে টাকা জমা দিয়ে ও কনফার্ম করতে পারেন।
আমাদের সাথে দেখা করার ঠিকানাঃ
অফিসঃ
Extreme Trekker of Bangladesh [ETB]
3/7-এ জনসন রোড, ভিক্টোরিয়া পার্ক, নগর সিদ্দীক প্লাজা, ২য় তলা, দোকান নং-১০২, (জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটের বিপরীত পাশের বিল্ডিং)
ভ্রমণ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যের জন্য :
সেতু – ০১৯১৬২২২৩৯৯/ ০১৮৮৩৬৯৭৭২৮
আসিফঃ ০১৬৭৬-১২৪৬৮২
তন্ময়ঃ ০১৬৮১-৭১৪৯৩২
আমাদের সব গুলো ইভেন্ট দেখতে ভিজিট করুনঃ
https://www.facebook.com/groups/extremeTbangladesh/events/

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কলকাতার এক স্নিগ্ধ সকালের রূপ-গন্ধ

নাগাল্যান্ড ভ্রমণে টিজিবি (২০ জুলাই)