E T B এর ইভেন্ট: আমিয়াখুম, নাফাখুম এবং লাংলুক ঝর্ণা ভ্রমণ

রোজার ঈদের ছুটিতে এই ইভেন্ট হওয়ার কথা থাকলেও তা সম্ভব হয়নি আবহাওয়া বৈরি হওয়ার কারণে। এটি একটি রিপিট ইভেন্ট। আশা করি প্ল্যান অনুযায়ী সবগুলো ঝরনা এবং জলপ্রপাত আমরা ভ্রমণ করতে পারবো। আসেন এবার দেখে নেই এবারের প্ল্যান।

আগস্ট ২৩: রাতের বাসে ঢাকা ত্যাগ।

আগস্ট ২৪: সকালে বান্দরবান শহর এসে নাস্তা করেই জীপে/বাসে করে চলে যাবো থানচি। থানচি থেকে বোটে করে চলে যাব আমরা পদ্মমুখ ঝিরি। সেখান থেকেই মূলত হাটা শুরু। ৭-৮ ঘন্টা হাটলে চলে যাওয়া যাবে থুইসা পাড়া। রাতে থুইসা পাড়াতেই বিশ্রাম। 
এখানে বলে রাখা ভালো যে থুইসা পাড়ার নিচে আছে রেমাক্রি খাল। সন্ধ্যাটা আরামসে কাটিয়ে দিতে পারেন খালের পাশে। বয়ে চলা পানির শব্দে আর বুনো পাখির ডাকে নিজেকে হারিয়ে ফেলতে পারেন এক অজানা ভুবনে।

আগস্ট ২৫: সকালে ঘুম থেকে উঠে নাস্তা সেরে রওনা হব আমিয়াখুমের দিকে। ঘন্টা দুয়েক লাগবে আমিয়াখুম চলে যেতে। তারপর আমরা যাব সাতভাইখুমের দিকে। সাতভাই খুম ঘুরে দেখা শেষ হলে এবার চলে যাবো ভেলাকুম এবং নাইক্ষিয়ং খুম এর দিকে। এবং এর পরে এগুলো সব ঘুরে চলে আসবো আবার থুইসা পাড়াতে। এই রাতে থুইসা পাড়াতেই রাত কাটাবো।

আগস্ট ২৬: সকালে ঘুম থেকে উঠে হালকা নাস্তা সেরে চলে যাবো এবারে ভরা বর্ষায় যৌবন ফিরে পাওয়া কাইক্ষিয়ং ১ এবং কাইক্ষিয়ং ২ এই দুইটা ঝরনা দেখার জন্য। ওখান থেকে ফিরে এসে রওনা হব নাফাখুম ঝরনার উদ্দেশ্যে। সেখানে নাফাখুম ঝরনা দেখে এর পাশেই রাইদংখিং পাড়ায় রাতটি কাটিয়ে দিব ঝরনার পানির কলকলতান শুনতে শুনতে।

আগস্ট ২৭: এদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে নাস্তা সেরে হাটা শুরু হবে নাফাখুম থেকে রেমাক্রি বাজার অব্দি। ওখানে গিয়ে বোটে করে যাত্রা শুরু হবে তিন্দু বাজারের উদ্দেশ্যে। তিন্দু বাজার পৌঁছেই পায়ে হেটে রওনা হব অপরুপ সুন্দরী লাংলুক ঝরনার উদ্দ্যেশে। মনে রাখবেন এই ঝরনাতে ইটিবি এর আগে কখনো যায়নি। একেবারেই নতুন কিছু। ঝরনা দেখে এসে ওই পাড়াতেই বিশ্রাম এবং রাতে থাকা।

আগস্ট ২৮: সকালে ঘুম থেকে উঠে নাস্তা সেরে বোটে করে থানচি তারপর জীপ/বাসে করে ফিরে আসবো বান্দরবান শহর এবং তারপর রাতের বাসে ঢাকা ফিরত।

আনুমানিক খরচঃ ৬,৭০০ টাকা জনপ্রতি ।

প্ল্যানে যে কোন ধরনের চেঞ্জ হতে পারে। প্ল্যানে পরিস্থিতির উপর বিবেচনা করেই চেঞ্জ করা হবে। এতে এডমিনদের সিদ্ধান্তই চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত। এতে কোন ওজর আপত্তি চলবে না। ভুলে যাবেন না পাহাড় এ ট্যুর করা আর সমতল এ ঘুরে বেড়ানো এক নয়। যাদের পাহাড় এর পরিস্থিতির ব্যাপারে বিন্দুমাত্র জ্ঞান নেই তারা আমাদের ইভেন্ট গুলো থেকে একটু দূরে অবস্থান করুন

আমাদের এবারকার ইভেন্টে যা যা থাকছে
১. তিন্দু
২. বড় পাথর, রাজা পাথর
৩.রেমাক্রি
৪. পদ্ম ঝিরি মুখ 
৫। আমিয়াখুম
৬। সাতভাইখুম
৭। ভেলাখুম
৮। কাইক্ষিয়ং ১
০৯। কাইক্ষিয়ং ২ ঝরনা
১০। লাংলুক ঝর্না
১১। নাফাখুম
এবং অসংখ্য জানা অজানার ঝিরিপথ সাথে পাহাড়ি বুনো পরিবেশ তো আছেই।

এ টাকায় যা যা পাবেনঃ
১। ঢাকা-বান্দরবান-ঢাকা নন এসি বাসে ভ্রমণ
২। ৫ দিন সকালের নাস্তা এবং মূল খাবার
৩। আদিবাসীদের কটেজে থাকা
৪। সকল ধরনের পরিবহন এবং বোট।
৫। গাইড সেবা।
৬। যেকোন এক রাত বার বি কিউ
৭। গ্রুপ টিশার্ট ১টি।

ভ্রমণ কাল: ৫দিন ৬ রাত
ভ্রমণের ধরন: হাইকিং এন্ড ট্রেকিং
ভ্রমণকারীর ধরণ: বিগেনার্স এন্ড ইন্টারমিডিয়েট এন্ড এক্সট্রিম

কনফার্ম করার নিয়মাবলীঃ

যারা যারা যেতে আগ্রহী তারা অবশ্যই ৩,০৬০/- টাকা (অফেরতযোগ্য) বিক্যাশে জমা দিয়ে আপনার আসন কনফার্ম করতে পারেন। 
বিক্যাশ করতে পারেনঃ 
০১৯১৬২২২৩৯৯ (পারসোনাল)
০১৮৮৩৬৯৭৭২৮ (পারসোনাল)
বিক্যাশে টাকা পাঠানোর পর অবশ্যই আপনি আমাদের ইভেন্ট পেজে একটা কমেন্টস করে কনফার্ম করবেন এবং উপোরোক্ত বিক্যাশ নাম্বারে আপনার নামঃ ঠিকানাঃ কন্টাক্ট নাম্বার সহ একটা এস এম এস করবেন।
ব্যাংকঃ
ব্যাংক একাউন্টেও টাকা জমা দিতে পারেন।
Bank Name: Dutch Bangla Bank Limited
Branch Name: Islampur Branch, Dhaka.
Account Name: Setu Chandra Das
Account Number: 118-101-52701

অথবা
সরাসরি দেখা করে হাতে হাতে টাকা জমা দিয়ে ও কনফার্ম করতে পারেন।
আমাদের সাথে দেখা করার ঠিকানাঃ
অফিসঃ
Extreme Trekker of Bangladesh [ETB] ETB Travel Shop
3/7-এ জনসন রোড, ভিক্টোরিয়া পার্ক, নগর সিদ্দীক প্লাজা, ২য় তলা, দোকান নং-১০২, (জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান গেটের বিপরীত পাশের বিল্ডিং)

ভ্রমন সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যের জন্য :
সেতু – ০১৯১৬২২২৩৯৯/ ০১৮৮৩৬৯৭৭২৮

Loading...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এক নজরে একটি জেলা: কুমিল্লার কিছু দর্শনীয় স্থান

এক নজরে একটি জেলা: গারো পাহাড়ের দেশ শেরপুর (সব বিনোদন কেন্দ্র)